২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী | সোমবার | সকাল ৮:২৪ | হেমন্তকাল
সর্বশেষ সংবাদ
Bangla Font Problem?

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৮ বছরের শিশু হত্যায় সৎ মায়ের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী

সোমবার :: ০৮.১০.২০১৮
জেলা শহরের হরিপুর মিয়াপাড়া মহল্লায় ৮ বছরের শিশু রেদোয়ান আহমেদ হৃদয়কে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার সৎ মা রোজিনা আক্তার আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী দিয়েছেন। আজ সন্ধ্যায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট নাজমুল হোসেনের আদালতে ১৬৪ ধারায় প্রদত্ত জবানবন্দীতে সৎমা রোজিনা কথা না শোনায় গতকাল বিকেলে কানের পাশে হাত দিয়ে আঘাত করে শিশু হৃদয়কে একাই হত্যা করেন বলে স্বীকার করেন। এছাড়া সৎ ছেলের প্রতি তাঁর দীর্ঘদিনের হিংসা ও রাগ ছিল। এছাড়া তাঁর আগের পক্ষের একটি ছেলেকে এই সংসারে আনার চেষ্টাও তিনি করছিলেন বলে জবানবন্দী দেন। পরে রোজিনাকে কারাগারে পাঠায় আদালত।
উল্লেখ্য গতরাত প্রায় ১টার দিকে হরিপুর মিয়াপাড়ায় বাড়ির সামনে একটি নীচু দেয়াল ঘেরা ফাঁকা স্থান থেকে শিশু হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। হৃদয় ওই এলাকার আব্দুর রহিমের ছেলে ও স্থানীয় হরিপুর মডেল মক্কা মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ছাত্র। এরআগে গতকাল বিকেল থেকে নিখোঁজের পর রাত ১২টার দিকে বাড়ির সামনেই একটি নীচু দেয়াল ঘেরা ফাঁকা স্থানে হৃদয়ের মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। তাৎক্ষনিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই কানের নীচে ও গলার নীচে আঘাতের চিহ্নযুক্ত মরদেহ উদ্ধার করে। রাতেই মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) ইদ্রিস আলী বলেন, মরদেহ উদ্ধারের কিছুক্ষণ আগে শিশুটির পিতা থানায় নিঁেখাজ ডায়েরী করেন। পরে আজ সকাল সাড়ে ৯টায় অজ্ঞাতনামাদের আসামী করে হত্যা মামলা করেন তিনি। এরপর বেলা ১১টায় সৎমা রোজিনাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। স্থানীয় সুত্র ও পুলিশ জানায়, পিতার সাথে নিজ মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদের পর শিশুটি পিতার সাথে সৎ মায়ের সংসারেই থাকত।

মন্তব্য দেয়া বন্ধ রয়েছে।

একদম উপরে যান