১১ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং | ৮ই শাবান, ১৪৩৯ হিজরী | মঙ্গলবার | সন্ধ্যা ৬:৫১ | গ্রীষ্মকাল
সর্বশেষ সংবাদ
Bangla Font Problem?

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২ লক্ষাধিক শিশুকে খাওয়ানো হয়েছে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল

শনিবার :: ২৩.১২.২০১৭
ভিটামিন এ খাওয়ান , শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমান” এই প্রতিপাদ্যে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের ২য় রাউন্ডের শুভ উদ্ধোধন করা হয়েছে। চাঁপাই নবাবগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে আজ সকালে পৌরসভার সামনে শিশুদের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাধ্যমে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ। পৌর মেয়র নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান, সিভিল সার্জন ডা. সায়ফুল ফেরদৌস মুহাম্মদ খায়রুল আতাতুর্ক, সদর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আলমগীর হোসেনসহ অন্যান্যরা। অনুষ্ঠানে পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাধ্যমে আমাদের ভবিষৎ কর্নধার, জাতির যারা কান্ডারী হবে সেই শিশুদেরকে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ার যে কর্মসূচি সরকার গ্রহণ করেছে আমরা এই কর্মসূচির মাধ্যমে তা গ্রহন করব। এসময় সিভিল সার্জন ডা. সায়ফুল ফেরদৌস মুহাম্মদ খায়রুল আতাতুর্ক বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের পর এই সরকারের সময় বাংলাদেশে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে সবচাইতে বেশি উন্নয়ন হয়েছে। গড় আয়ু বেড়েছে, মাতৃমৃত্যু-শিশু মৃত্যুর হার কমেছে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্বাস্থ্যখাতে যে লক্ষ্যমাত্রা তা পেরিয়ে গেছে। ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল শুধু রাতকানা রোগই প্রতিরোধ করেনা, এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি করে। জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজকের শিশু যদি সুন্দর স্বাস্থ্য নিয়ে, পরিপূর্ণ পুষ্টি নিয়ে বড় হতে না পারে, তাহলে সে পূর্ণাঙ্গ বয়সে একজন দক্ষ, মেধাবী, শারীরিকভাবে সক্ষম হিসেবে গড়ে উঠবে না। তার জীবনে অনেক ধরনের প্রতিবন্ধকতা তৈরি হবে। “ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর পাশাপাশি ভিটামিনের প্রাকৃতিক উৎস- ফলমূল, শাকসবজি, দুধ, ডিম, মাছ, মাংস এগুলো দিতে হবে। তাহলেই জাতি পাবে সুস্থ-সবল এবং মেধাবী আগামী প্রজন্ম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ বলেন, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। এর জন্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। আজকে আপনারা গ্রামের মধ্যে দেখতে পাবেন প্রত্যেকটি ইউনিয়নে তিনটি করে কমিউনিটি কমপ্লেক্স রয়েছে। যেখানে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষুধ পাচ্ছে সাধারন মানুষ। সরকার বছরে দুইবার কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে বলেও জানান তিনি। তিনি আরও বলেন, সবার প্রতি আমার আহব্বান, যেন কোন শিশু বাদ না পড়ে, সেই জন্য আমাদের আশেপাশের সবাইকে এর গুরুত্ব তুলে ধরতে হবে। উল্লেখ্য, জাতীয় “ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের ২য় রাউন্ডে আজ জেলার ৫ উপজেলা ও ৪ পৌরসভার ১ হাজার ২৫৯টি কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ৬ থেকে ১১মাস বয়সী ১লক্ষ্য ৭৭হাজার ২শ ৪ জন শিশুকে ১টি করে নীল রঙের “ভিটামিন এ ক্যাপসুল ও ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ২৩ হাজার ৮ শ ৭০ জন শিশুকে লাল রঙের “ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছে।

মন্তব্য দেয়া বন্ধ রয়েছে।

একদম উপরে যান