৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই মুহাররম, ১৪৪০ হিজরী | শুক্রবার | রাত ৪:২৫ | শরৎকাল
সর্বশেষ সংবাদ
Bangla Font Problem?

গম্ভীরা সংরক্ষণের লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ইউনেস্কো’র উদ্যোগে নতুন দল বাছাই সম্পন্ন।

শনিবার ঃঃ ০৮.০৭.২০১৭
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী গম্ভীরাকে যুগযুগ টিকিয়ে রাখতে এবং গম্ভীরাকে আরও সুরক্ষিত করার লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জে গত কাল শনিবার নতুন ২০টি দল বাছাই করা হয়েছে। ইউনেস্কো পার্টিসিপেশন প্রোগ্রামের আওতায় ঝধারহম এধসনযরৎধ, ধহ ওহঃধহমরনষব ঈঁষঃঁৎধষ ঐবৎরঃধমব ড়ভ ইধহমষধফবংয শীর্ষক এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি। বাংলাদেশ ইউনেস্কো জাতীয় কমিশন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সহযোগিতায় আজ সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে দল বাছাই কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন এবং প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান। প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেনের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ তৌফিকুল ইসলাম। গম্ভীরা দল বাছাইয়ের বিচারকদের মধ্যে অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য দেন, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার ফারুকুর রহমান ফয়সাল। এ সময় বাংলাদেশ ইউনেস্কো জাতীয় কমিশনের প্রোগ্রাম অফিসার খন্দকার খালেদ রিয়াজ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান বলেন-একটি সুস্থ সমাজ গঠনে সুস্থ ধারার সাংস্কৃতিক চর্চার বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। দেশের লোক সংস্কৃতির একটা বিরাট ঐতিহ্য রয়েছে। তার মধ্যে গম্ভীরা অন্যতম একটি। গম্ভীরা পরিবেশনকালে অপ্রাসঙ্গিক বিষয় এড়িয়ে যাওয়ার জন্য শিল্পীরা যেন সজাগ থাকেন এবং গম্ভীরাকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পরিচিত করার লক্ষ্যে কিছুকিছু বিশেষ দল তৈরীরও পমরামর্শ দেন তিনি। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী এই গম্ভীরা যেন ইনটেনজিবল কালচারাল হেরিটেজ হিসাবে স্বীকৃতির জন্য বাংলাদেশ সরকার, ইউনেস্কো ও স্থানীয় প্রশাসনের নিকট জোর দাবি জানানো হয়। অনুষ্ঠানে জানানো হয় বাছাইকৃত ১০টি নারী ও ১০টি পূরুষদলকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

মন্তব্য দেয়া বন্ধ রয়েছে।

একদম উপরে যান